শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রাতের আঁধারে বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন ॥ তদন্ত কমিটি গঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি | শুক্রবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ | পড়া হয়েছে 210 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রাতের আঁধারে বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন ॥ তদন্ত কমিটি গঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সদর উপজেলার গাংগীহাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম রাতের আঁধারে পরিবর্তন করে দিয়েছে কে বা কারা। গত বৃহস্পতিবার রাতের যে কোন সময়ে সদর উপজেলার রামরাইল ইউনিয়নের গাংগীহাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম মুছে মোহাম্মদপুর সরকারি বিদ্যালয় নামকরণ করা হয়।

খবর পেয়ে শুক্রবার ৩১শে ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুরে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ইয়ামিন হোসেন বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় ১ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রায় তিন দশক আগে ওয়াহিদুর রহমান ভূইয়া রামরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান থাকাকালে ইউনিয়নের গাংগীহাতা গ্রামের নাম পরিবর্তন করে মোহাম্মদপুর নামে নামকরণ করেন। কিন্তু গ্রামের গাংগীহাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামটি ওই সময় পরিবর্তন করা হয়নি। ১৯৪০ সালে প্রতিষ্ঠিত গাঙগীহাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামটি বৃহস্পতিবার রাতে মুছে কে বা কারা মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নামে নামকরণ করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনের দেয়ালে লেখা বিদ্যালয়ের নামটি মুছে মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় লিখা হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিদ্যালয়ের এক কর্মচারী জানান, বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের জন্য গ্রামবাসী দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছিলো। এরই মধ্যেই বৃহস্পতিবার রাতে কে বা কারা বিদ্যালয়ের দেয়ালে থাকা বিদ্যালয়ের নাম মুছে নতুন নাম লিছেছে।

এ ব্যাপারে গাংগীহাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহমুদা বেগম বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে বিদ্যালয়ের নামটি কে বা কারা মুছে নতুন নাম লিখে দিয়ে গেছে। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার উম্মে সালমার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে কে বা কারা বিদ্যালয়ের দেয়ালে থাকা নামটি মুছে নতুন নামকরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় তাঁকে প্রধান করে ১ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ২ জানুয়ারি তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার খোরশেদ আলম বলেন, ঘটনাটি আমি জেনেছি। ঘটনাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ইয়ামিন হোসেন বলেন, আমি বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করেছি। গেজেট অনুযায়ী বিদ্যালয়টির নাম গাংগীহাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিষয়টি শিক্ষা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১